ব্লগিং করে আয় করার উপায়-২০২১। Make money by blog.

কিভাবে ব্লগিং করে ইনকাম করা যায়, কিছু উপায় দেয়া আছে। ব্লগিং করে সহজে অনলাইনে ইনকাম করতে পারেন। How to make money by blogging.

1097 VIEWS

ব্লগিং করে আয় করার উপায়
  • আপনি কী ব্লগিং থেকে টাকা উপার্জন করতে পারেন?
  • ব্লগিং থেকে টাকা উপার্জন করার বিভিন্ন উপায়গুলো কী?
  • আপনাকে টাকা উপার্জন করার জন্য কী ব্লগ করতে হবে?

আপনার মনে যদি উপরের প্রশ্ন গুলোর মধ্যে যে কোন একটি থেকে থাকে, তাহলে আপনি সঠিক জায়গাতে এসেছেন। নিচের এই বৃহৎ নির্দেশনাতে ”ব্লগিং থেকে কীভাবে টাকা উপার্জন করবেন ?” আপনি সকল উপায় সমূহ জানতে পারবেন যেটা আপনাকে শুরু করতে সাহায্য করবে।

এই পদ্ধতিগুলো আমার প্রফেশনাল ব্লগিং অভিজ্ঞতার উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে।

কয়েক বছর আগে, যারা ফুল টাইম জব করত তাদের অন্য একটি শখের বিষয় ছিল ব্লগিং। আজকের দিনে ব্লগিং এখনো সেই পথেই আছে কিন্তু অনেক কিছু পরিবর্তন হয়েছে।

২০২০ সালে, ব্লগিং হয়ে উঠেছে একটি লাভজনক অনলাইন পেশা এবং একটি বৃহৎ জনসংখ্যা এই মহান পেশাতে যুক্ত হচ্ছে অর্থাৎ ব্লগিং শুরু করছে।

ব্লগিং থেকে টাকা উপার্জন করার বিভিন্ন উপায়গুলো জানার আগে চলুন একনজরে দেখে নেওয়া যাকঃ

  • আপনি ব্লগিং থেকে কী পরিমান টাকা উপার্জন করতে পারবেন?
  • আপনি কী আপনার জীবন সম্পর্কে ব্লগ করেন এবং টাকা উপার্জন করেন?

আপনি ব্লগিং থেকে কী পরিমান টাকা উপার্জন করতে পারবেন?

অন্যান্য পেশা যেমন ডাক্তার, উকিল, ইন্জিনিয়ার, ফিনালশিয়াল অ্যাডভাইজারদের মতো ব্লগিংয়েও বিভিন্ন লেভেল আছে যারা যে কোন জায়গা থেকে বছরে ১০০০ ডলার থেকে শুরু করে ২ মিলিয়ন ডলার পর্যন্ত আয় করে থাকে।

আপনি ব্লগিং থেকে কী পরিমান টাকা উপার্জন করতে পারবেন সেটা নির্ভর করছে কয়েকটা বিষয়ের উপর। যেমনঃ

  • আপনি কোন নিস বাছায় করেছেন?
  • আপনি শেখার এবং জানার জন্য কতটুকু সময়কে উৎসর্গ করেছেন?
  • আপনি আপনার ব্লগিংয়ের জন্য কী পরিমান ট্রাফিককে ড্রাইভ করেছেন।
  • আপনি কোন ডিজিটাল মার্কেটিং কৌশল অবলম্বন করেছেন?
  • আরো কয়েকটি ফ্যাক্টর রয়েছে যেমন, দৃঢ়তা, আপনার নেটওয়ার্ক, ব্যক্তিগত অনুপ্রেরণা এবং লক্ষ্য অনেক ভূমিকা পালন করে।

যাইহোক, এই ব্লগিং ফিল্ডে নিস এবং ডিজিটাল মার্কেটিং দক্ষতা একা আপনাকে খুব দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেনা।

মনসংযোগ এবং মটিভেশন সম্পর্কে জানার জন্য আপনাকে bnlite.com এর অন্যান্য আর্টিকেলগুলো পড়তে হবে। কিন্তু এই নির্দেশিকাতে আমরা পুরোপুরিভাবে ব্লগিং থেকে কীভাবে টাকা উপার্জন করা যায় সেই বিষয়ের উপর ফোকাস করব।

ব্লগিং থেকে টাকা উপার্জন করার বিভিন্ন উপায়গুলো কী?

ব্লগিং থেকে টাকা উপার্জন করার জন্য অনেক পদ্ধতি রয়েছে যেটা নির্ভর করছে আপনার ব্লগিংয়ের লেভেল এবং ব্লগিংয়ের ধরনের উপর। আপনি সেই পদ্ধতিটাই গ্রহন করবেন যেটা আপনার স্টাইলের সাথে মিলে যাবে।

(বিভিন্ন ইনকাম মাধ্যম)

১. Ad নেটওয়ার্ক, (AdSense, Media.net): ( বিগিনারদের জন্য)
২. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং: (সবচেয়ে লাভজনক পদ্ধতি)
৩. ডিজিটাল পণ্য বিক্রি করুন: (eBooks, Blueprints) (মধ্যম পর্যায়ের জন্য)
৪. স্থানীয় বিজ্ঞাপন:
৫. অনলাইন কোর্স শুরু করা: (মেম্বারশিপ সাইট)
৬. সরাসরি বিজ্ঞাপন:(মধ্যম পর্যায়ের জন্য)
৭. স্পন্সার রিভিউ: (সকল লেভেল)
৮. ব্রান্ডের প্রচারনা চালান: (মধ্যম এবং উচ্চ লেভেল এর জন্য)
৯. সেবাসমুহ

নিচে ব্লগিং থেকে কীভাবে টাকা উপার্জন করবেন সেগুলো বিস্তারিত বর্ণনা করা হলঃ

১. Ad নেটওয়ার্ক:

Ad নেটওয়ার্ক টাকা উপার্জনের জন্য সবচেয়ে সাধারন একটি পদ্ধতি। সবচেয়ে জনপ্রিয় দুইটি Ad network হচ্ছেঃ

  • Google AdSense
  • Media.net

এই দুইটি Ad নেটওয়ার্ক থেকে Approval পাওয়ার জন্য আপনার ব্লগ থাকতে হবে। এগুলো আপনার আর্টিকেল এর ধরন এবং ব্যবহারকারীর আকর্ষণ অনুযায়ী অটোমেটিক ভাবে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে থাকে। বেশিরভাগ নতুন ব্লগাররা তাদের উপার্জনের মাধ্যম হিসেবে এগুলোকেই বেছে নেয়। যখন হাই কোয়ালিটির বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করবে সেগুলো user experience এ প্রভাব ফেলবে না।

যদি আপনার ব্লগে দিনে 300 views না হয় তবে আরো অন্যান্য Ad নেটওয়ার্ক রয়েছে।

যাইহোক, আপনার লক্ষ্য থাকতে হবে আপনাকে যেভাবেই হোক Google AdSense অথবা Media.net এর approval পেতেই হবে।

যদি আপনার এই উপায় যথেষ্ট না হয় তাহলে আপনাকে সরাসরি বিজ্ঞাপন বা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এ চেষ্টা করতে হবে।

০২. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং:

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং টাকা উপার্জনের একটি উত্তম মাধ্যম। Ad এ একটি ক্লিক এর চেয়ে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এ একটি সেল (বিক্রি) আপনাকে অনেক বেশি টাকা এনে দেবে।

বেশিরভাগ ব্লগাররা অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং ব্যবহার করে কারন এর মাধ্যমে ব্লগিং থেকে সবচেয়ে বেশি অর্থ উপার্জন করা যায়।

নিচে কয়েকটি জনপ্রিয় অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মার্কেটপ্লেস লিস্ট দেওয়া হল যেগুলোতে আপনি জয়েন করতে পারেনঃ

  1. Amazon Affiliate program
  2. ShareAsale
  3. PartnerStack
  4. ImpactRadius
  5. Awin
  6. Commission Junction

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং নিয়ে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হল। আপনি এই টেকনিক যেকোন ব্লগিং প্ল্যাটফর্মে ব্যবহার করতে পারবেন যেমন, Wix, Squarespace, Medium এমনকিLinkedIn এ।

আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হল আপনাকে দেওয়া প্রোডাক্ট এর ইউনিক লিংটিকে শেয়ার করতে হবে। যখন কেউ একজন প্রোডাক্টটি কিনবে তখন আপনাকে ওই পণ্যটির বিক্রি করার জন্য আপনাকে অনেক কমিশন দেওয়া হবে।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হল এমন একটি মাধ্যম যার মাধ্যমে প্রচুর সংখ্যক ব্লগার তাদের ব্লগ থেকে বছরে মিলিয়ন ডলার আয় করছে।

০৩. ডিজিটাল পণ্য বিক্রি করুন:

আপনি যদি খেয়াল করেন তাহলে দেখবেন ব্লগিংয়ে টপ লেভেল এর বিসনেস মডেলরা তাদের নিজস্ব প্রোডাক্ট বিক্রি করছে যেমন ই-বুক।

আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হল একটি টপিক নির্বাচন করুন, ঐ টপিক এর উপর ই-বুক তৈরি করুন এবং বিক্রির জন্য আপনার ব্লগে বা Amazon এ রাখুন।
একবার আপনি এই পদ্ধতি ব্যবহার করলে আপনি বেশ ভালো পরিমান অর্থ অনলাইনে ই-বুক বিক্রি করে উপার্জন করতে পারবেন।

মোটকথা ভালো উপার্জনের জন্য নিজ পণ্য বিক্রয় একটি উত্তম উপায়।

এছাড়া আপনি আপনার আর্টিকেল কে বইয়ে রূপ দিয়ে অন্যান্য প্ল্যাটফর্মে যেমন, kdp.Amazon.com এ বিক্রি করে টাকা আয় করতে পারবেন।

আপনি আপনার বইয়ের কভার ডিজাইন করার জন্য Freelancing network যেমন Fiverr ব্যবহার করতে পারেন।

০৪. স্থানীয় বিজ্ঞাপন:

ব্লগিং থেকে টাকা উপার্জনের একটি অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে স্থানীয় বিজ্ঞাপন। বিশেষভাবে নিউজ বা জব জাতীয় ব্লগগুলো স্থানীয় বিজ্ঞাপন থেকে অনেক বেশি আয় করে থাকে। নিচে কিছু নেটিভ বা স্থানীয় বিজ্ঞাপন লিস্ট দেওয়া হল যেগুলো আপনার সময়ের মূল্য দিবে এবং আপনার প্রচেষ্টা বাস্তবায়ন করবে।

  1. Taboola
  2. Outbrain (High Quality native ads)
  3. Mgid
  4. এডসেন্স (Adsense also offer native ads).

০৫. অনলাইন কোর্স শুরু করা:

  • আপনি কি টেক্সটবুক কে ভিডিও ফরম্যাটে রূপান্তর করতে পারেন?
  • আপনি কি চেকলিস্ট বা ডাউললোড করার টেমপ্লেট যুক্ত করতে পারেন?
  • আপনি কি ১-২ ঘন্টার ভিডিও কোর্স তৈরি কতে পারেন?

যদি আপনার উত্তর ‘হ্যা’ হয় তাহলে অবশ্যই এই পদ্ধতিটি আপনার জন্য। টেকনোলোজিকে ধন্যবাদ কারন এখন যেকোন কারো জন্য অনলাইন কোর্স শুরু করা খুবই সহজ। যদি আপনার কোর্স ইউনিক হয় তাহলে আপনার জন্য ১ মিলিয়ন ডলারের লক্ষ্যে পৌছানোর সম্ভাবনা অনেক বেশি বেড়ে যায়।

০৬. সরাসরি বিজ্ঞাপন:

এখানে কোন প্রশ্ন থাকেনা যে AdSense হচ্ছে ব্লগারদের জন্য সবচেয়ে বেস্ট বিজ্ঞাপন সাইট। কিন্তু এখানে সীমাবদ্ধতা আছে।

সবচেয়ে বড় সীমাবদ্ধতা হল এখানে আপনাকে প্রতি ক্লিকের জন্য মূল্য দেওয়া হবে।

আপনি যদি সরাসরি বিজ্ঞাপনকে আয়ত্তে আনতে পারেন তাহলে এটিকে AdSense এর সাথে replace করে নিতে পারেন।

সরাসরি বিজ্ঞাপন এর সবচেয়ে বেস্ট উপায় হল আপনি বিভিন্ন নেটওয়ার্কে চুক্তি করবেন যে তারা যেন আপনার ব্লগে সরাসরি বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে।

০৭. স্পন্সার রিভিউঃ

স্পন্সার রিভিউ মাসিক ইনকাম বৃদ্ধির একটি সেরা উপায়। আপনি খুব সহজে একটি ছোট পোস্টের রিভিউ থেকে ১০ ডলার বা তার বেশি আয় করতে পারবেন।

যখন আপনি রিভিউ করবেন তখন যে বিষয়গুলোর প্রতি লক্ষ্য রাখতে হবে তা হলঃ

  • Paid Review: Good, Bad or Ugly.
  • আমি কি Paid Review করছি নাকি ফ্রিতে রিভিউ করছি।

০৮. ব্রান্ডের প্রচারনা চালানঃ

এটি যেকোন প্রকার ব্লগের জন্যই উপোযোগী যেটা গ্রাহকদের উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত।

আপনাকে ব্রান্ডগুলোকে তাদের টার্গেটে পৌছাতে ব্রান্ডের প্রচারনা চালিয়ে তাদেরকে সাহায্য করতে হবে।

প্রয়োজনে তাদের ব্রান্ডের জন্য ভিডিও তৈরি করতে হবে।

০৯. সেবাসমুহঃ

আপনার দক্ষতার উপর ভিত্তি করে আপনি বিভিন্ন সেবা বা সার্ভিস অফার করতে পারেন। এটা নির্ভর করছে আপনি কোন ক্ষেত্রে ভালো। আপনি যেগুলো অফার করতে পারেন তাহল, কন্টেন্ট রাইটিং, লোগো তৈরি, SEO এবং আরো অনেক।

সার্ভিস অফার আপনাকে শুধু টাকা উপার্জনেই সাহায্য করবে না, সাথে সাথে আপনার দক্ষতা বাড়াতেও সাহায্য করবে।

সার্ভিস অফার খুবই সহজ কাজ। আপনাকে যেটা করতে হবে সেটা হল আপনার ব্লগে একটি পেজ তৈরি করতে হবে এবং আপনি যে যে সেবা বা সার্ভিসগুলো অফার করছেন তার লিস্ট বানাতে হবে।

উপরের স্টেপগুলোকে ফলো করলে আপনি খুব সহজে ব্লগিং থেকে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

রিলেটেড পোস্ট:

Post Tags:-

ছোটবেলা থেকেই আমার কাছে আকর্ষনের একটি বিষয় ছিল প্রযুক্তি। ধীরে ধীরে নিজেকে জড়িয়ে ফেলেছি নেটওয়ার্ক টেকনোলজির সাথে। নিজের অভিজ্ঞতা ও টেকনোলজি সম্পর্কিত বিভিন্ন টিপস অন্যদের সাথে শেয়ার করার জন্য এই লেখালেখি শুরু করা...

মন্তব্য করুনঃ-

  1. How to maintain current and overtake inflation, raising greatly the capital? Bingo! To secure a several BTC! A lot more specifically — It’s not at all uncomplicated to receive, and to get paid. Any Unusual responsibilities, virus videos and polls that are blowing up The top — you simply hold in network and within the price of it mine bitcoins.