Likee App থেকে টাকা ইনকাম করার উপায় | লাইকি থেকে আয়

কিভাবে Likee থেকে টাকা আয় করা যায়? লাইকই থেকে টাকা ইনকার করার উপায়গুলো বর্ণনা কর। লাইকই থেকে সহজে টাকা আয় করতে হয়। Make money on likee…

359 VIEWS

লাইকই (Likee) হচ্ছে একটি শর্ট ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপস। Likee থেকে টাকা আয়ের উপায় নিয়ে আলোচনা করব।

Likee এমন একটি অ্যাপস যেটা ব্যবহার করে ছোট ছোট ভিডিও তৈরি করা যায়। ছোট ভিডিও বলতে কতটুকু ছোট? লাইকই এপসগুলো সাধারণত ৩০ সেকেন্ডের নিচে হয়।

গুগল প্লে স্টোরে Likee এর গড় রেটিং ৪.৩ এবং এটি ৫০০মিলিয়ন বার ডাউনলোড করা হয়েছে। ভারত, বাংলাদেশ সহ অনেকদেশ মিলিয়ে এর একটিভ ইউজার সংখ্যা প্রায় ৮০ মিলিয়ন। এক কথায় এখনে প্রচুর ট্রাফিক, ডিজিটাল ওর্য়াল্ডে ট্রাফিক মানেই টাকা।

কি কি উপায়ে লাইকই থেকে টাকা আয় করা যায় তা জেনে নেয়া যাক।

লাইকি থেকে টাকা ইনকাম

০১. স্পনন্সারশিপ করে লাইকি থেকে টাকা ইনকাম

আপনার কাছে যখন অনেক ভিজিটর থাকবে তখন লোক আপনাকে দিয়ে তাদের প্রডাক্ট বিজ্ঞাপন করাতে চাইবে।

ইউটিউবে সাধারণ ভালো স্পন্সারশিপ পেতে হলে ৫০ হাজারের উপরে সাবস্ক্রাইবার লাগে। তেমনভাবে Likee তে স্পন্সারশিপ পেতে হলে কিছু ফলোয়ার থাকতে হবে।

আপনার কাছে যত বেশি ফলোয়ার থাকবে, তত স্পন্সারশিপ পাওয়ার সম্ভাবনা বয়েছে। ভালো কোম্পানীগুলো তাদের প্রডাক্টের বিজ্ঞাপন করাতে অনেক খরচ করে।

Likee থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়।

০২. ভার্চুয়াল গিফট

লাইভ ভিডিও করে Likee থেকে ইনকাম করা যায়। লাইভ ভিডিও করার সময় যদি আপনাকে কেউ গিফট দেয় তবে সেখান থেকে আয় করতে পারবেন। কারণ গিফটগুলো আসল টাকায় রুপান্তর করা যায়।

লাইকই এপস এ লাইভ করতে হলে আপনার লেভেল-২০ পার করতে হবে। তাছাড়া আমি সাজেশন দিব আগে কিছু ফলোয়ার বানান তারপর লাইভে আসুন।

নতুনদের প্রতি কেউ খেয়াল করে না; তাই আপনার ফলোয়ার কম থাকলে লাইভে এসে তেমন গিফট পাবেন না; মানে টাকা পাবেন না।

লাইক থেকে টাকা আয়

০৩. ভিডিও আপলোড

আপনি লাইকইর জন্য কয়েক সেকেন্ডের ভিডিও বানাতে পারেন। ভিডিও বানানোর পর লাইকইতে বিভিন্ন ইফেক্ট থাকে; সেগুলো থেকে পছন্দমতো একটি এপ্লাই করুন। সর্বশেষ লাইকইতে আপলোড করুন।

ভিডিও টি যদি ভাইরাল হয় এবং ভিউয়াররা যদি আপনাকে ডায়মন্ড বা কোনোকিছু গিফট করে তরে তা আসল টাকায় কনভার্ট করতে পারবেন। এভাবে Likee থেকে টাকা আয় করা যায়।

Likee App থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়।

০৪. চ্যালেঞ্জ পুরষ্কার জিতে লাইকি থেকে আয়

লাইকই বিভিন্ন সময় বিভিন্ন প্রতিযোগীতার আয়োজন করে। বিজয়ীদের জন্য বিভিন্ন পুরস্কার ও কুপন দিয়ে থাকে।

আপনার যদি যথেষ্ট ট্যালেন্ট থাকে; তবে সহজে এসব চ্যালেঞ্জ জিতে প্রচুর টাকা আয় করতে পারেন।

০৫. নিজের পণ্য বিক্রি করা

লাইকই ব্যবহার করে আপনার পণ্যের প্রচার করতে পারেন। যেমন: টিশার্ট, ডিজাইন করা শাড়ি ইত্যাদি।

প্রথম অবস্থায় এসব বেচার চেষ্টা না করাই ভালো। আগে আপনার ফলোয়ার বাড়ানোর চিন্তা করুন। ভিউয়ার বাড়লে তবে এসব জিনিস বেচা শুরু করুন।

ফলোয়ার কম থাকলে এসব জিনিস বিক্রির সম্ভাবণা কম থাকে; করণ আপনার অডিয়েন্স কম। আর নতুনদের ভিডিও তেমন কেউ দেখতে চায় না। এটাই Likee থেকে টাকা আয় করার সবচেয়ে ভালো পদ্ধতি।

Likee App থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়।

০৬. ইনভাইট করে Likee থেকে টাকা আয়

ফেন্ডদেরকে ইনভাইট করে টাকা আয় করা যায়। আপনার বন্ধুদের এখানথেকে লিংক ক্রিয়েট করে লিংক দিন; এই লিংকের মাধ্যমে লাইকই ডাউনলোড করতে বলুন।

রেফারেল লিংক

আপনার বন্ধুরা যদি আপনার দেয়া রেফারেল লিংক ব্যবহার করে তাবে লাইকই আপনাকে টাকা দিবে; মানে কিছু ডাইমন্ড বা কয়েন দিবে।

Likee App থেকে টাকা ইনকাম

কত টাকা পাব?

লাইকই ওয়ালেট অপশনে গেলে দেখতে পারবেন আপনার কত ডায়মন্ড আছে। এবং কতটিতে আপনার কত টাকা দেয়া হবে তাও দেখতে পারবেন।

ওয়ালেট অপশন

শেষকথা:

অনলাইনের প্রতিটি প্লাটফর্মে কাজ করার জন্য দরকার প্রচুর ধৈর্য; এখানেও ব্যাতিক্রম নয়।

আপনাকে ফোকাস করতে হবে আপনার অডিয়েন্স বৃদ্ধি করার দিকে। ভাইয়াল হতে পারে এমন ধরনের ভিডিও বানাতে হবে। কোনো সম্ভাবনাকে হাতছাড়া করবেনা।

কখনও হাল ছাড়বেন না; সফলতা আসবেই আসবে।

রিলেটেড পোস্ট:

কোনো অংশ বুঝতে কষ্ট হলে কমেন্ট করতে পারেন। Sharing is Caring.

প্রযুক্তির প্রতি চরম আকর্ষণ থেকেই টেলিকমিউনিকেশনে পড়ছি। প্রযুক্তির কঠিন বিষয়গুলি সহজভাবে মানুষকে বলতে খুবই ভাল্লাগে। এই ভালোলাগা থেকেই লেখালিখি শুরু। ওয়েব ডেভলপমেন্ট ও নেটওয়ার্কিং প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করা আমার নেশা ও পেশা।

মন্তব্য করুনঃ-